‘এখানে কোনও মুসলিম কর্মী কাজ করেন না’, বিদ্বেষমূলক বিজ্ঞাপন দিয়ে গ্রেফতার বেকারির মালিক

একটি গুজবের মোকাবিলা করতেই এমন উদ্যোগ বলে দাবি বেকারি কর্মীদের৷

64

চেন্নাই: লকডাউনে বেকারির পসার বাড়াতে এমনই বিজ্ঞাপন দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে চেন্নাইয়ের ‘জৈন বেকার্‌স অ্যান্ড কনফেকশনারিজ’-এর মালিকের বিরুদ্ধে ৷ ‘নো মুসলিম স্টাফ’, এই মর্মে দোকানের বিজ্ঞাপন দিয়েছিলেন তিনি ৷ বিতর্কিত বিজ্ঞাপনটি মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে ৷ মুসলিম বিদ্বেষী বিজ্ঞাপন দেওয়ায় সেকশন ২৯৫এ এবং সেকশন ৫০৪ ধারায় শনিবার তাঁকে গ্রেফতার করে পুলিশ ৷

চেন্নাইয়ের টি নগরের মহালক্ষ্মী স্ট্রিটে অবস্থিত এই বেকারির বিজ্ঞাপন সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলেছে ৷ পসার বাড়াতে ওই দোকানের মালিক একটি বিজ্ঞাপন দেন ৷ তাতে লেখা হয়, ‘এখানে সমস্ত খাবার জৈন কর্মীরাই করেন ৷ কোনও মুসলিম কর্মী এখানে নেই ৷’ এমন ধর্মীয় উস্কানিমূলক বিজ্ঞাপন ছড়িয়ে পড়ে সর্বত্র ৷ বিজ্ঞাপনের বার্তার কারণে দায়ের হয় সুয়ামোটো মামলা ৷

তবে মালিকের গ্রেফতারির পর বেকারির কর্মীরা প্রতিবাদ করে জানিয়েছেন, কোনও ধর্মীয় উস্কানি বা নির্দিষ্ট সম্প্রদায়ের মানুষকে আঘাতের উদ্দেশ্যে এই বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়নি, বরং একটি গুজবের মোকাবিলা করতেই এমন উদ্যোগ- বলে দাবি বেকারি কর্মীদের৷ তারা জানিয়েছেন, সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি বার্তা ভাইরাল হয় ৷ যেখানে লেখা ছিল, মুসলিমরা কাজ করেন এমন কোনও জায়গা থেকে জিনিস কিনবেন না ৷ তারপর থেকেই বেকারিতে কোনও মুসলিম কর্মী আছেন কিনা জানতে চেয়ে প্রচুর ফোন আসতে থাকে ৷বিক্রি কমে যাওয়ার ভয়ে এবং এই গুজব শেষ করতেই জৈন বেকার্‌স অ্যান্ড কনফেকশনারিজ’-এ কোনও মুসলিম কর্মী কাজ করেন না জানিয়ে বিজ্ঞাপন দেন বিপণীর মালিক ৷ তাতেই শুরু সমস্ত বিতর্কের দাবি বেকারির কর্মচারীদের৷

LEAVE A REPLY

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে