ক্যুরিয়ার পাঠাতে গিয়ে জালিয়াতদের তৈরি ওয়েবসাইটে ব্যক্তিগত তথ্য দিয়ে ফেলছেন না তো!

লকডাউনে ঘরবন্দি মানুষ আর সেই সুযোগে কাজ লাগাচ্ছে বেশ কিছু জালিয়াত!

61

লকডাউনে ঘরবন্দি মানুষ আর সেই সুযোগে কাজ লাগাচ্ছে বেশ কিছু ভুয়ো সংস্থা। যারা ব্যাঙ্ক, সোশ্যাল মিডিয়া যাবতীয় অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করছে। আর এবার সেই দলে নাম উঠল কিছু ক্যুরিয়ার সার্ভিসের। জনপ্রিয় বা স্বনামধ্য কিছু ক্যুরিয়ার সার্ভিসের নাম করে প্রয়োজনীয় সামগ্রী অথবা নথিপত্র পাঠাতে ভুয়ো ওয়েবসাইট খুলছে হ্যাকাররা। আর খুব স্বাভাবিক ঘটনা লকডাউনে যেহেতু ঘরে আটকে থাকতে হচ্ছে তাই প্রয়োজনীয় জিনিস পাঠাতে সাধারণ মানুষকে বরসা রাখতে হচ্ছে ক্যুরিয়ার সার্ভিসের উপরে।

এই সুযোগকেই কাজে লাগিয়ে ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে মানুষকে। এই ভুয়ো সংস্থাগুলির প্যাকিং, লোগো থেকে শুরু করে ওয়েবসাইটের পেজটি যাবতীয় দেখতে আসল ওয়েবসাইটের মতোই। যার ফলে বিভ্রান্তিতে পড়তে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। যার ফলে প্রয়োজনীয় নথি-সহ তো খোয়াতে হচ্ছেই সেই সঙ্গে আর্থিক ক্ষতির মুখেও পড়তে হচ্ছে গ্রাহকদের। নামীদামি সংস্থার ওয়েবসাইট এর পেজ নকল করে প্রতারকরা নেট দুনিয়ায় জুড়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। ভুয়ো এই  ক্যুরিয়ার সার্ভিসের ক্ষেত্রে প্রতারকরা প্রথমেই ফোন করে জানিয়ে দিচ্ছে গ্রাহকদের লকডাউনে এক্সট্রা চার্জ লাগবে ক্যুরিয়ারের জন্য।

পেমেন্ট করার জন্য এই অবস্থায় অনলাইন পেমেন্টই করতে বাধ্য গ্রাহকরা। আর এই উপায়ে গ্রাহকের অ্যাকাউন্টের ডিটেল হাতে চলে আসছে প্রতারকদের। আর গ্রাহকদরে অনলাইন পেমেন্ট এর ব্যবস্থা না থাকলে যে কোনও অনলাইন পেমেন্ট এর ব্যবস্থা করে দিচ্ছে এই ভুয়ো সংস্থাগুলোই। তাই এই ধরণের প্রতারকের ফাঁদে পা দেওয়ার আগে প্রকৃত সংস্থা যাচাই করে তবেই অনলাইন পেমেন্ট করুন। প্রয়োজনে অনলাইনে সংস্থার ইমেইল আইডি যাচাই করে নিন।

LEAVE A REPLY

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে