‘তাপসের অভাব অনুভব করছি’: টুইটে মাধুরী দীক্ষিত

67

১৯৮০-তে তরুণ মজুমদারের দাদার কীর্তি-তে অভিনয়ে হাতেখড়ি হয়ে গেছে তাপসের। সেই হৃদয়ছোঁয়া সাবলীল অভিনয় দেখেই ১৯৮৪ সালে পরিচালক হীরেন নাগ তাঁকে ডেকে নিয়ে গিয়েছিলেন তখনকার বম্বেতে। ওই বছর তিনি পরিচালনা করেন হিন্দি ছবি অবোধ। তাপসের বিপরীতে নায়িকা মাধুরী দীক্ষিত । সেই অনুযায়ী মাধুরীর প্রথম হিরো বাংলার নায়ক।

৩৬ বছর পর ফের ‘গৌরী’ মাধুরী ফের ‘শঙ্কর’ তাপসের-এর জন্য ব্যাকুল। ছবির গল্প বলছে, শঙ্করের জন্য নাকি দীর্ঘকাল অপেক্ষা করতে হয়েছিল গৌরীকে। তবে সে কাছে পায় স্বামীকে। বাস্তবে মাধুরীর আর দেখা হল না অভিন জীবনের প্রথম নায়কের সঙ্গে। সেই আপশোস তিনি জানিয়েছেন টুইটে।

মুম্বইতেই বরাবরের মতো চোখ বুঁজলেন তাপস। তবু চোখে দেখা হল না!। সেই আক্তাষেপ মাধুরীর টুইটের প্রতি অক্ষরে, ‘তাপস আমার জীবনের প্রথম নায়ক। খবরটা শোনার পরেই শূন্যতা অনুভব করছি। যেখানেই থাকুক, ভালো থাকুক। ওর আত্মার শান্তি কামনা করি। সমবেদনা জানাই স্ত্রী আর মেয়েকে।’

LEAVE A REPLY

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে