দীর্ঘদিন আগে নির্মাণ হয়েছে আইটিআই ক্লাস চালু না হওয়ায় ক্ষোভ এলাকায়

22

মালদা: আড়াই বছর হয়ে গেল হরিশ্চন্দ্রপুর এর বুকে নির্মাণ হয়েছে আইটিআই কলেজ। কিন্তু এখনো ক্লাস চালু হয়নি। এর জেরে ক্ষোভে ফুঁসছে এলাকাবাসী। এলাকাবাসীর অভিযোগ জনপ্রতিনিধিদের প্রতিশ্রুতি মত এখানে আইটিআই কলেজ হলেও এখনো পর্যন্ত ক্লাস চালু হয়নি। এর জেরে সমস্যায় পড়ছে আইটিআই প্রশিক্ষণ নিতে ইচ্ছুক কর্ম প্রার্থীরা। এই কলেজটি চালু হলে এলাকার যুবকেরা কর্মসংস্থানের জন্য নির্দিষ্ট প্রশিক্ষণ নিতে পারবে। কিন্তু এই কলেজ চালুর জন্য প্রশাসন থেকে জনপ্রতিনিধি কারো কোনো হেলদোল নেই। উল্টে সন্ধ্যা নামলেই এই কলেজ চত্বরে বসছে নেশার আসর। এমনটাই অভিযোগ স্থানীয় এলাকাবাসীদের।

হরিশ্চন্দ্রপুর আইটিআই কলেজের নিরাপত্তারক্ষী শান্তনু ঘোষ জানালেন বছর দুয়েক আগে এই আইটিআই কলেজ হস্তান্তর হয়। বর্তমানে এই আইটিআই কলেজের এখনো ক্লাস শুরু হয়নি। এই কলেজের বাউন্ডারি ওয়াল না থাকায় আশেপাশের লোকেরা যখন তখন এই কলেজে ঢুকে পড়ছে। কলেজ চত্বরে গরু-ছাগল বাধা হচ্ছে। কলেজের বাইরে স্ট্রীট ল্যাম্প গুলিতে কোন আলো না থাকায় সন্ধ্যা নামলেই এলাকাটি অন্ধকারে ডুবে যাচ্ছে। কলেজের ঘরের আলো জ্বালিয়ে তাদের রাত্রে পাহারা দিতে হচ্ছে। এ নিয়ে তারা নিরাপত্তার অভাব বোধ করছেন। রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে কলেজের অনেক ঘরেই পলেস্তারা খসে পড়তে শুরু করেছে।

স্থানীয় বাসিন্দা রাজকুমার পাঠক জানালেন অবিলম্বে এই আইটিআই কলেজ চালু হওয়া প্রয়োজন। এই কলেজটি চালু হলে এলাকার অনেক যুবক-যুবতীর যেমন কর্মসংস্থান হবে তেমনি এলাকার বেকার যুবক যুবতীরা স্বনির্ভর হওয়ার জন্য কর্মমুখী শিক্ষা লাভ করতে পারবে। এই আইটিআই চত্বরে রাতের অন্ধকারে অসামাজিক কাজ কর্মের আড্ডা বসছে। অবিলম্বে প্রশাসনের এ ব্যাপারে নজর দেওয়া উচিত।

এই আইটিআই কলেজ টির জন্য জমি দান করেছিলেন হরিশ্চন্দ্রপুর সংগঠন সমিতি।এই সমিতির সাধারণ সম্পাদক অনুপ কুমার দাস জানালেন আমরা এই কলেজটি চালুর ব্যাপারে মালদা আইটিআই কলেজের অধ্যক্ষকে স্মারকলিপি দিয়েছিলাম বছরখানেক আগে। তিনি জানিয়েছিলেন রাজ্য থেকে আদেশ এলেই ক্লাস চালু হয়ে যাবে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত কোন ক্লাস শুরু হয়নি। এবার তারা সমিতির পক্ষ থেকে আরটিআই করবেন বলে স্থির করেছেন।

এলাকার জেলা পরিষদ এর শিশু ও নারী কল্যাণ কর্মদক্ষ মর্জিনা খাতুন জানালেন এ বিষয়টি নিয়ে তিনি রাজ্যের কারিগরি শিক্ষা মন্ত্রী জানাবেন। আগামী জেলা পরিষদের মিটিংয়ে বিষয়টি উত্থাপন করবেন।যাতে কলেজের কাজকর্ম খুব তাড়াতাড়ি চালু করা যায় সে বিষয়ে উদ্যোগ নেবেন।

হরিশ্চন্দ্রপুর ১ নং ব্লকের সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক অনির্বাণ বসু জানালেন হরিশ্চন্দ্রপুর আইটিআই কলেজের পরিকাঠামো তৈরি হয়ে আছে। ক্লাস শুরু হওয়ার বিষয়টি কেন বিলম্ব হচ্ছে বিষয়টি তিনি খোঁজ নিয়ে দেখবেন এবং যাতে এলাকার শিক্ষিত যুবক-যুবতীরা কারিগরি শিক্ষার প্রশিক্ষণ নিতে পারেন সে ব্যাপারে উদ্যোগী হবে।

LEAVE A REPLY

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে